মহিউদ্দিন আকবর (দাদুমণি)’র জন্য দোয়ার আরজ


কলমবাণী’র সম্মাণিত উপদেষ্টা কবি, ছড়াকার, প্রাবন্ধিক, চিত্রশিল্পী জনাব মহিউদ্দিন আকবর (দাদুমণি) অসুস্থ্য অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি  আছেন। 

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, গতকাল সন্ধ্যা আনুমানিক ৫টায় হৃদরোগে আক্রান্ত হলে তাঁকে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়।

কলমবাণী পরিবারের পক্ষ থেকে জনাব মহিউদ্দিন আকবর (দাদুমণি)’র সুস্থ্যতার জন্য সকল কবি-সাহিত্যিক ও দেশবাসীর নিকট দোয়া প্রার্থী।

মহান সৃষ্টিকর্তা যেন দাদুমণি’কে আমাদের মাঝে সুস্থ্যবস্থায় ফিরিয়ে দেন (আমিন)।


আমাদের প্রিয় নবী হযরত মোহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মানব জীবনের সব সমস্যার সমাধানে দিয়েছেন গুরুত্বপূর্ণ দিক-নির্দেশনা। যার ইঙ্গিত কুরআনে এসেছে, ‘এবং (তিনি)  প্রবৃত্তির তাড়নায় কথা বলেন না।’ (সুরা নজম) সুতরাং হাদিসের ওপর আমল করা জরুরি। হাদিসে এসেছে, অসুস্থ্য ব্যক্তিকে দেখতে গেলে তার জন্য আল্লাহর দরবারে কিভাবে দোয়া করতে হবে। তার কয়েকটি তুলে ধরা হলো-

০১. হজরত ইবনে আব্বাস রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত, রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি এমন কোনো রুগ্ন মানুষের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবে, যার এখনো মৃত্যুর সময় উপস্থিত হয়নি এবং তার নিকট সাতবার এই দোয়াটি বলবে-

أَسْأَلُ اللهَ العَظيمَ، رَبَّ العَرْشِ العَظِيمِ، أَنْ يَشْفِيَكَ
উচ্চারণ : আসআলুল্লাহাল আজিমা, রাব্বাল আরশিল আজিমি, আঁইয়্যাশফিয়াক’ অর্থাৎ `আমি সুমহান আল্লাহ, মহা আরশের প্রভুর নিকট তোমার আরোগ্য (সুস্থতা) প্রার্থনা করছি` আল্লাহ তাকে সে রোগ থেকে মুক্তি দান করবেন।’ (মুসনাদে আহমাদ, তিরমজি, আবু দাউদ)

০২. হজরত ইবনে আব্বাস রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে আরো বর্ণিত আছে যে, রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম একজন বেদুঈনকে দেখতে গেলেন। আর তাঁর নিয়ম এই ছিল যে, যখন তিনি কোনো রোগীকে দেখতে যেতেন তখন বলতেন-

لَا بَأْسَ طُهُوْرٌ اِنْشَاءَ اللهُ 
উচ্চারণ : লা- বা’সা তুহু-রুন ইনশাআল্লাহ।
অর্থ : ‘ভয় নেই, আল্লাহর মেহেরবানীতে আরোগ্য লাভ করবে ইনশাআল্লাহ (বুখারি, মুসলিম, মিশকাত)

০৩. হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা বলেন, আমাদের মধ্যে কেউ যখন অসুস্থ হতো তখন রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাঁর ডান হাত রোগীর শরীরে বুলাতেন এবং বলতেন- 
اَذْهَبِ الْبَأْسَ رَبَّ النَّاسِ - وَاشْفِ اَنْتَ الشَّافِي - لَا شِفَاءَ اِلَّا شِفَائُكَ شِفَاءً لَا يُغَادِرُ سَقْمًا
উচ্চারণ : আজহাবিল বা’সা রব্বান না-সি, ওয়াশফি আনতাশ শা-ফি-, লা শিফাআ’ ইল্লা- শিফা-উকা শিফা-আ’ লা ইউগাদিরু সুক্বমা।
অর্থ : ‘হে মানুষের প্রতিপালক! এ রোগ দূর কর এবং আরোগ্য দান কর, তুমিই আরোগ্য দানকারী। তোমার আরোগ্য ব্যতিত কোনো আরোগ্য নেই। এমন আরোগ্য, যা বাকী রাখে না কোনো রোগ।’ (বুখারি, মিশকাত)

পরিশেষে...
অসুস্থ ব্যক্তির জন্য প্রত্যেকের দোয়া করা উচিত। যেভাবে দোয়া করতে শিখিয়েছেন রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। আল্লাহ তাআলা আমাদেরকে উপরোক্ত হাদিসগুলোর ওপর আমল করার তাওফিক দান করুন। আমিন।-
Blogger দ্বারা পরিচালিত.